নঁওগার মান্দায় অসহায় মানুষের পাশে " অমর্ত্য ফাউন্ডেশন "

নিজেস্ব প্রতিনিধিঃ- করোনার নিষ্ঠুর আঘাতে সারা পৃথিবী যখন স্থবির, তখন অর্ধাহারে-অনাহারে দিন কাটাচ্ছে দেশের কর্মহীন মধ্যবিত্ত, নিম্ন মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্তের মানুষেরা। ঠিক তখনই মানবতার হাত বাড়িয়ে মান্দার ১০০ টি অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে “অমর্ত্য  ফাউন্ডেশন”। ১১ মে  নওগাঁ  জেলার মান্দা  উপজেলার কুসুম্বা, তেতুলিয়া, প্রসাদপুর সহ বিভিন্ন এলাকার পরিবারের মাঝে “ অমর্ত্য  ফাউন্ডেশন” এর পক্ষ থেকে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে। সেখানে "মানুষের জন্য ফাউন্ডেশন" ও "নীহারিকা ফাউন্ডেশন" এর সেচ্ছাসেবকগণ "অমর্ত্য ফাউন্ডেশন" এর পক্ষে অসহায় মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে উপহার পৌছে দেয়।


“অমর্ত্য  ফাউন্ডেশন” একটি চ্যারিটি সংগঠন। সিডনি প্রবাসী বাংলাদেশী সাংবাদিক ফজলুল বারীর বড় ছেলে তৌকির তাহসিন বারী অমর্ত্য ২০২০ সালের আগষ্টে হঠাৎ করে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মাত্র ২১ বছর বয়সে মারা যান। এরপর শোকার্ত পরিবারের ঘনিষ্ঠ স্বজনরা অমর্ত্য ফাউন্ডেশন গড়ে তোলেন।  বাংলাদেশ ভারতের বাংলাভাষী এলাকায় অভাবী মানুষজনের মাঝে খাবার পানির ব্যবস্থা, শিক্ষা, জরুরী ত্রাণ বিতরণের  মাধ্যমে সংগঠনটি সাধারন মানুষের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে।

মান্দায় উপহার গুলো পৌছে দিতে সেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করেন সাজ্জাদুল ইসলাম , আরিফ হোসেন, দেলোয়ার হোসেন, নাজমুল হোসেন, ফারুক হোসেন, আকাশ মাহমুদ, সাধন কুমার শীল, রানা আহমেদ, মিঠুন আহমেদ প্রমুখ । সার্বিক দায়িত্বে ছিলেন স্বেচ্ছাসেবক জনাব বাপ্পারাজ রাজু ।